মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ ১৪ই আষাঢ় ১৪২৯
 
১৩ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক, বিয়ে না করলে তরুণীর আত্মহত্যার হুমকি
প্রকাশ: ০৯:০১ am ২৩-০৫-২০২২ হালনাগাদ: ০৯:৫৭ am ২৩-০৫-২০২২
 
 
 


কামরুজ্জামান মিন্টু, স্টাফ রিপোর্টার: ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়ে অনশন শুরু করেছে প্রেমিকা। এ ঘটনায় পালিয়েছে প্রেমিক।

উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের চরআলগী গ্রামে শনিবার রাত ৮টা থেকে অনশন শুরু হয়ে এখনো চলছে।

ওই প্রেমিকের নাম দেলোয়ার হোসেন (২৮)। তিনি উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের চরআলগী গ্রামের কাজিম উদ্দিনের ছেলে। তিনি একটি এনজিওতে চাকরি করেন।

মেয়েটি (২৬) একই গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন।

বিষয়টি সময়ের কন্ঠস্বরকে নিশ্চিত করেছেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জহিরুল ইসলাম মুন্না।

তিনি বলেন, সকালে জানতে পারি মেয়েটি বিয়ের দাবিতে দেলোয়ার হোসেনের বাড়িতে অনশন করছে। তাৎক্ষণিক পুলিশ পাঠিয়ে মেয়েকে তাদের বাড়িতে যেতে বলা হয়। কিন্তু বিয়ে না করলে বাড়ি ছাড়বে না বলে পরিষ্কার জানিয়ে দেয়৷ তাকে জোর করে সরাতে চাইলে বিষ খেয়ে আত্নহত্যারও হুমকি দেওয়া হয়৷ তখন দেলোয়ার বাড়িতে ছিলনা। এমতাবস্থায় মেয়েটিকে থানায় লিখিত অভিযোগ করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বিয়ের দাবিতে অনশন করা মেয়েটি জানান, স্কুল জীবন থেকে দেলোয়ার হোসেনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে সম্পর্ক চলছে। এ সময়ের মধ্যে বিয়ের আশ্বাসে দেলোয়ারের সাথে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। কিন্তু আগামী বৃহস্পতিবার পারিবারিকভাবে দেলোয়ারের বিয়ের দিন ঠিক হয় অন্য জায়গায়। এমতাবস্থায় বাধ্য হয়ে বিয়ের দাবিতে তার বাড়িতে অবস্থান নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি আসার পরই পালিয়েছে দেলোয়ার। যদি আমাকে দেলোয়ার বিয়ে না করে, তাহলে হাতে থাকা বিষ খেয়ে আত্নহত্যা করব।

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে দেলোয়ারের মোবাইল নম্বরে একধিকবার ফোন দিলেও তার নম্বরটি বন্ধ দেখায়।

এ বিষয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পীরজাদা শেখ মোহাম্মদ মোস্তাছিনুর রহমান বলেন, এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 
 

আরও খবর

 
 
© Somoyer Konthosor | Developed & Maintenance by Ambala IT